ইসলামের ইতিহাস ৩য় খণ্ড

ইসলামের ইতিহাস ৩য় খণ্ড
মাওলানা আকবর শাহ খান নজিবাবাদী
ইসলামিক ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ

ইসলামের ইতিহাস ৩য় খণ্ড
মাওলানা আকবর শাহ খান নজিবাবাদী
ইসলামিক ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ

আকবর শাহ খান নাজিবাবাদী (১৮৭৫ – ১০ মে ১৯৩৮) একজন ভারতীয় সুন্নি মুসলিম ইতিহাসবিদ। তিনি তিন খণ্ডে রচিত তারিখ-ই-ইসলাম গ্রন্থ লিখেছিলেন। [১]

জীবনী
নাজিবাবাদী ১৮৭৫ সালে ব্রিটিশ ভারতের যুক্তপ্রদেশের বিজনোরের নাজিবাবাদে জন্মগ্রহণ করেছিলেন। তিনি ১৮৯৭ সালে নাজিবাবাদ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা শুরু করেন এবং পরবর্তীতে নাজিবাবাদের উচ্চ বিদ্যালয়ে ফারসি পড়ান। [২]

১৯০৬ এবং ১৯১৪ সালে তিনি কাদিয়ানে অবস্থান করেন এবং আহমদিবাদ গ্রহণ করেন । তিনি মির্যা গোলাম আহমদের উত্তরসূরি হাকিম নুরুদ্দীনের নিকট ধর্মীয় শিক্ষালাভ করেন এবং দুই খন্ডে তার জীবনী রচনা করেছিলেন, যার নাম ছিল মিরকাতুল ইয়াকীন ফি হায়াতি নুরুদ্দীন। যার দ্বিতীয় খন্ড অপ্রকাশিত থেকে যায় তার সুন্নি ইসলাম মতবাদে প্রত্যাবর্তন করার কারনে। [৩] কাদিয়ানে নাজিবাবাদী পাঁচ বছর আহমদিপন্থি মাদ্রাসা নুর আল-ইসলামের সুপারিনটেনডেন্ট ছিলেন।

নূরুদ্দিনের মৃত্যুর পর নাজিবাবাদী মির্জা বশিরুদ্দীন মাহমুদ আহমদের চিন্তাধারায় প্রত্যাবর্তন করলেও তার সাথে আর একমত হতে পারেননি। ১৯১৫ সালের মাঝামাঝি পর্যন্ত নাজিবাবাদী আহমদীদের লাহোরি গ্রুপের সাথে যুক্ত ছিলেন। [৪] কিছু সময়ের জন্য লাহোরি গ্রুপের সাথে যুক্ত থাকার পরে তিনি আবার সুন্নি ইসলাম মতবাদে ফিরে আসেন। [৫]

১৯১৬ সালে নাজিবাবাদী “ইবরত” নামে একটি সাময়িকী আরম্ভ করেছিলেন, যার সহযোগী ছিলেন আবদুল হালিম শারার এবং আসলাম জয়রাজপুরী। মুহাম্মদ ইকবালও এতে কবিতা প্রকাশ করেছিলেন। [৫] জাফর আলী খানের কারাবাসের সময় তিনি এক বছরের জন্য তৎকালীন পাকিস্তানের জমিদার নামক পত্রিকার সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

১৯৩৭ সালের জুনে নাজিবাবাদীর পেটে পীড়া আরম্ভ হয়, যার ফলে ১৯৩৮ সালের ১০ ই মে তার মৃত্যু হয়। [৫]
ইসলামের ইতিহাস ৩য় খণ্ড
ইতিহাসের আরো বই পড়ুন এই লিংক থেকে: ইতিহাস।

Reviews

There are no reviews yet.

Be the first to review “ইসলামের ইতিহাস ৩য় খণ্ড”

Your email address will not be published.